News logo
Sunday 8th December 2019

মৌলভীবাজারে পত্রিকায় মিথ্যা সংবাদ প্রচার ও প্রকাশ করে চতুর জালাল আহমদের লন্ডনে স্থায়ী হওয়ার চেষ্টা



নভেম্বর ২, ২০১৬ | ০৩:২৫:০২

মিথ্যা সংবাদ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তির্

 

বাংলাকাগজটুয়েন্টিফোরডটকম রিপোর্ট

মো: জালাল আহমদ সংক্রান্ত সংবাদটি বিগত ২০.০৪.২০১৫ ইং
তারিখে বাংলাকাগজ২৪.কম-এ মৌলভীবাজারের শীর্ষ
সন্ত্রাসী নাশকতাকারি জালালকে গ্রেফতার করার দাবি শিরোনামে প্রকাশিত
সংবাদটি জালালের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের বিভিন্নি আদালত ও থানায় দায়েরকৃত
ভূয়া মামলা মোকদ্দমার কাগজপত্র দেখিয়ে ভূল  তথ্য সরবরাহ করে
বিভ্রন্তিমূলক সংবাদ ছাপায় একটি প্রতারক চক্র অধিকতর পুন:তদন্ত করে
সংবাদটি সঠিক নয় বলে প্রমাণিত হয়েছে।মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিদেশে স্থায়ী
হওয়ার জন্য  মূলত সংবাদটি প্রকাশ করা হয় বলে বাংলাকাগজটুয়েন্টিফোরডটকম
কর্তৃপক্ষ নি:শ্চিত হয়েছে। বাংলাকাগজ, এই বেলাসহ যে সব পত্রিকায় নিউজটি
ছাপা বো প্রকাশিত হয়েছে। এর সবকটি নিউজ ভূয়া। জালাল আহমদ বর্তমানে অবৈধ
ভাবে বৃটেনে বসবাস করছে। সেখানে স্থায়ী হওয়ার জন্য মূলত মিথ্যা সংবাদ
পত্রিকায় প্রকাশ করায়। অনুসন্ধানে আরো জানা যায় জালালের বিরুদ্ধে
বাংলাদেশের কোথাও কোন থানা বা আদালতে মামলা নেই। মামলা সংক্রান্ত ভূয়া
কাগজ দেখিয়ে মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে লন্ডনে স্থায়ী হওয়ার জন্য ছলছাতুরির
আশ্রয় নিয়েছে।
এসব অভিযোগ বাংলাকাগজ২৪.কম অনুসন্ধান করে মিথ্যা এবং সঠিক নয় বলে বিবেচিত
হওয়ায়  বাংলাকাগজ২৪.কম-এ প্রকাশিত সংবাদ ডিলেট করা হয়েছে বা মুছে ফেলা
হয়েছে।এই মিথ্যা সংবাদ প্রচার করে জনমনে বিভ্রন্তি সৃষ্টি হওয়ায় প্রকাশিত
এই সংবাদটি জন্য বাংলাকাগজ কর্তৃপক্ষ দুক্ষিত ও অনুতপ্ত এবং জাতির কাছে
ক্ষমা প্রার্থনা করছে। ভবিষ্যতে এ ধরণের সংবাদ প্রচার বা প্রকাশ করার আগে
বাংলাকাগজ সতর্ক থাকবে। ০৬/০৯/২০১৫ইং তারিখের কালেরছবি, ০৬/১১/২০১৫ ইং
তারিখের সিলেট বানী,১০/১১/২০১৫ইং তারিখের সময়ের ডাক এবং ২৬/০৫/২০১৫ ইং
তারিখের ভোরের অপেক্ষাসহ সবকটি পত্রিকায় জালাল সংক্রান্ত খবরটি মিথ্যা
এবং বানোয়াট এবং বৃটেনে স্থায়ী হওয়ার জন্য উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে প্রচার
বা প্রকাশ করা হয়েছে। এই মিথ্যা নিউজ বাংলাদেশের বিভিন্ন পত্রিকা এবং অনলাইন পোর্টালে প্রকাশ করে লন্ডনে স্থায়ী হওয়ার ফন্দি আটে চতুর জালাল। সম্প্রতি বাংলাকাজটুয়েন্টিফোরডটকম-এর অনুসন্ধ্যানে জানা যায় যে সব তথ্যের ভিত্তিতে সংবাদ গুলো তৈরি এবং প্রচার  ও প্রকাশ করা হয় তা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে প্রমাণিত হয়েছে।

Top