News logo
Sunday 8th December 2019

বড়লেখায় আ’লীগ নেতা আলম হত্যাকারীর ফাঁসির দাবিতে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ



অক্টোবর ১, ২০১৬ | ২০:২৩:৫৯

বড়লেখা প্রতিনিধি
সন্ত্রাসী হামলায় নিহত বড়লেখার সীমান্তবর্তী উত্তর শাহবাজপুর ইউপির ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার, প্যানেল চেয়ারম্যান ও ইউপি আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন আলম হত্যাকারী সন্ত্রাসী কাজলের ফাঁসি ও নেপথ্যের ষড়যন্ত্রকারীদের দ্রুত চিহ্নিত করে গ্রেফতারের দাবিতে শুক্রবার রাত ৯টায় বড়লেখা পৌর শহরে উপজেলা ছাত্রলীগ বিক্ষোভ মিছিল করেছে। ডাক বাংলো থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে শহর প্রদক্ষিণ শেষে স্থানীয় কার্যালয়ের সামনে পথসভায় মিলিত হয়।
উপজেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ছালেক আহমদের সভাপতিত্বে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ আহমদ ও হাফিজুর রহমানের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবু আহমদ হামিদুর রহমান শিপলু, যুগ্ম আহবায়ক ছালেহ আহমদ জুয়েল, প্রচার সম্পাদক সাইফুর রহমান, পৌর আহবায়ক হারুনুর রশীদ বাদশা, উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সঞ্জয় দাস, চম্পক দাস, ময়নুল ইসলাম, সদর ইউপি ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক জালাল আহমদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের পৌর সভাপতি নাজমুল হোসেন, প্রজন্মলীগের সভাপতি নোমান আহমদ, সহসভাপতি কবির আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাইদুর রহমান সাইদুল, যুবলীগ নেতা বদরুল আলম উজ্জ্বল, আসাদুজ্জামান আসাদ, কামরান হোসেন, নাসির হোসেন, সুমন আহমদ, জুনেদ আহমদ, কামরুজ্জামান রাসেল, ফয়সল আহমদ, সিদ্রাতুল কাদের আবির, কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ছামাদ আহমদ, মারুফ হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা সাইফুর রহমান, মান্নান আহমদ, টিপু সুলতান, সুমন দাস, কয়েছ আহমদ, নাসির আহমদ, প্রীতম কান্তি দাস, মাসুদুর রহমান, ইকবাল হোসেন, শিপু লাল দাস, ইমরান হোসেন, জামিল হায়দার, ফয়সল সাইদুল ইসলাম, প্রজন্মলীগ নেতা রাসেল আহমদ প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, ‘আবুল হোসেন আলমের উত্তরোত্তর রাজনৈতিক জনপ্রিয়তায় ইর্ষান্বিত হয়ে ষড়যন্ত্রকারীরা রাজনৈতিক স্বার্থ-হাসিলের লক্ষ্যে সন্ত্রাসী হামলার নীল নকশা তৈরি করে তাকে হত্যা করেছে। যা আওয়ামী স্বচ্ছ রাজনীতির অপূরণীয় ক্ষতি। সমাজের মুখোশধারীদের সুগভীর ষড়যন্ত্রে আওয়ামী পরিবারের একের পর এক জনপ্রিয় নেতাদেরকে ধারাবাহিকভাবে হত্যা করা হচ্ছে। নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে নেপথ্যের ষড়যন্ত্রকারীদের দ্রুত চিহ্নিত করে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করলেই শাহবাজপুরের জনপদে এ ধরনের হত্যাযজ্ঞ বন্ধ হবে।

Top