ব্রেকিং নিউজ
জুড়ীতে আওয়ামীলীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন

জুড়ীতে আওয়ামীলীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন

এম শাকিল রশীদ চৌধুরী ঃ জুড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক,প্রবীন শিক্ষক শিলুয়া উচ্চবিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আজির উদ্দিন আহমদ সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন স্বাধীনতার পরাজিত শক্তির ইন্ধনে একটি কুচক্রীমহল আমার মানহানীর অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে। ছাত্রলীগের রাজনীতির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে সাড়া দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছি এবং বি,এল,এফ এর সশস্ত্র গ্র“প মুজিব বাহিনীর কুলাউড়া থানার ডেপুটি কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেছি। স্বাধীনতার পর দীর্ঘ ৩৯ বছর শিক্ষকতা পেশায় জড়িত ছিলাম। স্বাধীনতার ৪৪ বছর পর একটি কুচক্রীমহল আমাকে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা বলে অপবাদ দিয়ে সমাজে হেয় করার অপচষ্টা করছে। শনিবার দুপুরে জুড়ী উপজেলা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মুক্তিবার্তা লাল বইয়ে লিপিবদ্ধ তাঁর নামসহ মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে বহু প্রমাণাদি উপস্থাপন করে তিনি আরো বলেন, জুড়ী উপজেলার শিলুয়া গ্রামের বাসিন্দা প্রতুল চন্দ্র দেব ১৯৬৫ সালে ভারত চলে যাওয়ায় তাঁর সম্পত্তি তৎকালীন আইন অনুযায়ী শত্র“ সম্পত্তির অন্তর্ভূক্ত হয়। তাঁর ভাই দিগেন্দ্র দেব এ সম্পত্তি জবর দখল করে রাখেন। ১৯৭১ সালে প্রতুল চন্দ্র দেব বাড়িতে এলে ভাইদের ভয়-ভীতিতে ১৯৭২ সালে পুনরায় দেশ ত্যাগ করেন। এরপর থেকে গোয়ালবাড়ি ইউনিয়নের ১৬জন ব্যক্তি উক্ত সম্পত্তির ১.৫০ একর করে ২৪ একর জমি বন্দোবস্ত নিয়ে খাজনা-ট্যাক্স দিয়ে ভোগ-দখল করছেন। বাকি সম্পত্তি দিগেন্দ্র দেব এর পুত্র টলু দেবদের দখলে রয়েছে। দিগেন্দ্র দেব উক্ত সম্পত্তি নিয়ে ১৯৭৩ থেকে ১৯৭৮ সাল পর্যন্ত আদালতে একাধিক মামলা করলেও আদালতের রায় তাঁদের বিপক্ষে যায়। তিনি বলেন উক্ত সম্পত্তি শত্র“ সম্পত্তিতে রুপান্তরে আমার কোন ভূমিকা ছিলনা। এমনকি আমি কোন জায়গাও বন্দোবস্ত নেইনি। ইতিপূর্বে আমার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ওয়াহিদ নামে একটি ভৌতিক অভিযোগ মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয়ে দেয়া হয়। তদন্তকালে আব্দুল ওয়াহিদ লিখিতভাবে অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করলে তা মিথ্যা প্রমাণিত হয়। নিজের পরিবারের কেহ জামায়াতের রাজনীতির সাথে জড়িত নয় দাবি করে তিনি বলেন, আমার প্রতি ব্যক্তিগত হিংসা ও মানহানীর অসৎ উদ্দেশ্যে একটি মুখোশধারী কুচক্রীমহলের ক্রীড়নক হয়ে দিগেন্দ্র দেবের পুত্র দিবেন্দু দেব টলু গত ১৭ নভেম্বর মৌলভীবাজার অনলাইন প্রেসক্লাবে আমি ও আমার ভাই মুক্তিযোদ্ধা মখলিছ উদ্দিনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্ভট অভিযোগ উত্থাপন করেন। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তাঁর বক্তব্য প্রত্যাহারের আহ্বান জানাচ্ছি। নতুবা আমি আইনগত ব্যবস্থা নিতে বাধ্য থাকবো।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কুলাউড়া প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি প্রবীন সাংবাদিক সুশীল সেনগুপ্ত, জুড়ী উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক শফিক আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কুলেশ চন্দ্র চন্দ মন্টু, জায়ফরনগর ইউপি চেয়ারম্যান নজমুল ইসলাম মাষ্টার গোয়ালবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন লেমন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুল কাদির দারা, মেম্বার জাকির আহমদ কালা, মাহবুবুল ইসলাম কাজল প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন আব্দুল কাদির, আব্দুল আহাদ, আব্দুল আজিজ, বাদশা মিয়া, আজাদ চৌধুরী হাসি, সাইফুর আলম ফজল, জুয়েল রানা, হাছান উদ্দিন প্রমুখ।

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*