ব্রেকিং নিউজ
বড়লেখার কাঠ মিস্ত্রী নুর উদ্দিন প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির রাজকীয় চেয়ার পৌঁছে দেয়া নিয়ে দুশ্চিন্তা

বড়লেখার কাঠ মিস্ত্রী নুর উদ্দিন প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির রাজকীয় চেয়ার পৌঁছে দেয়া নিয়ে দুশ্চিন্তা

 

আবদুর রব, বড়লেখা থেকে : মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার কাঠমিস্ত্রী নুরুদ্দিন (৩৩) ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন দেখতেন দেশের বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও রাষ্ট্রপতিকে নিজ হাতের তৈরী করে চেয়ার উপহার দেয়ার। সে লক্ষ্যে ফার্নিচার তৈরীর কাজ শিখতে শুরু করেন। দুই বছরেই দক্ষ কাঠ মিস্ত্রী হয়ে উঠেন। অভাবের সংসারে দরিদ্রের সাথে সংগ্রাম চালালেও স্বপ্ন পুরনের লক্ষ্য থেকে এক বিন্দুও বিচ্যুত হননি। প্রায় সাড়ে তিন বছর নিরলসভাবে চেষ্টা চালিয়ে তৈরী করেছেন রাষ্ট্র প্রধান ও সরকার প্রধানের বসার রাজকীয় চেয়ার। এখন কাঠমিস্ত্রী নুর উদ্দিনের একটাই দুশ্চিন্তা চেয়ার দুইটি পৌছাবেন কিভাবে। শুক্রবার সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, উপজেলার দক্ষিণভাগ (দ:) ইউনিয়নের গজভাগ গ্রামের নিু মধ্যবিত্ত পরিবারের মখদ্দছ আলীর ৮ ছেলে ও ২ মেয়ের মধ্যে নুরুদ্দিন দ্বিতীয়। তিনি ২ ছেলে ও ২ মেয়ের জনক। নুরুদ্দিন (৩০) ১৪ বছর ধরে ফার্ণিচার তৈরীর কাজ করেছেন। তার নিজের তৈরী করা ফার্ণিচার দক্ষিণভাগ বাজারে জোনাকী ফার্ণিচার নামক একটি দোকানে রেখে বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করেন। নুরুদ্দিন দক্ষিণভাগ ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের নবগঠিত কমিটির সভাপতি। নুরুদ্দিন জানান, দীর্ঘ দিন থেকে তার স্বপ্ন ছিল বঙ্গবন্ধু পরিবারে কিছু একটা উপহার দেয়ার। তাই প্রায় সাড়ে ৩ বছর পূর্বে অকশনে কাঠ কিনে ফার্ণিচার তৈরীর কাজের ফাঁকে শুরু করেন দুইটি রাজকীয় চেয়ার তৈরীর কাজ। চেয়ারগুলোতে কাঠ হিসেবে ব্যবহার করেছেন সেগুন, একলামশিয়া ও গর্জন। রূপালী, কালো, সবুজ আর ভারত থেকে আনা সোনালী রংয়ের প্রলেপ দেয়া চেয়ারগুলো দেখতে অত্যন্ত আকর্ষনীয়। যা নাটক/সিনেমা ছাড়া সচরাচর দেখা যায় না। নুরুদ্দিন জানান, অনেক কষ্টের বিনিময়ে ছোটবেলার স্বপ্ন পুরনের একধাপ তিনি শেষ করেছেন। এখন এগুলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে পৌছে দিতে না পারলে তার স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে। উপজেলা আ’লীগ নেতা ইমান উদ্দিন, দক্ষিণভাগ ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি তাজউদ্দিন আহমদ লতা, সম্পাদক সুব্রত কুমার দাস শিমুল, ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ন সম্পাদক এম. সামছুল হক ও ব্যবসায়ী মোস্তফা কামাল হীরা জানান দারিদ্রতার সাথে সংগ্রাম চালিয়ে কাঠমিস্ত্রী নুরুদ্দিন রাষ্ট্রপ্রধান ও সরকার প্রধানের জন্য দুইটি আকর্ষনীয় চেয়ার তৈরী করে বড়লেখা তথা মৌলভীবাজার জেলাকে সম্মানিত করেছেন। আমরা জাতীয় সংসদের হুইপ শাহাব উদ্দিন এমপিকে সুপারিশ করবো চেয়ারগুলো যেন পৌছে দেয়ার ব্যবস্থা নেন।

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*