News logo
Saturday 23rd March 2019
বর্তমান পুলিশ বাহিনী আগের চেয়ে অনেক বেশি জনবান্ধব-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান

বর্তমান পুলিশ বাহিনী আগের চেয়ে অনেক বেশি জনবান্ধব-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান

আবদুর রব, বড়লেখা থেকে
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি বলেছেন, ১০ বছর আগের পুলিশ আর বর্তমানের পুলিশের সাথে মিল খোজে পাওয়া যাবে না। এখন পুলিশ বাহিনী আগের চেয়ে অনেক বেশি দক্ষ, মেধাবী ও জনবান্ধব। বর্তমান সরকার বিশ্বাস করে যদি আইন শৃঙ্খলার উন্নতি না থাকে তবে কোন কিছুই সফল হয় না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আইন শৃংখলাবাহিনীকে আরো যুগোপযোগী করার লক্ষ্যে কাজ করছেন। তার নেতৃত্বে দেশের মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ বাহিনীর আধুনিকায়নের কাজ চলছে। জনগণের নিরাপত্তায় পুলিশ সদস্যরা নানা সীমাবদ্ধতা স্বত্ত্বেও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দায়িত্ব পালন করছেন, ঝাপিয়ে পড়ছেন। সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ নির্মুলে ইতিমধ্যে পুলিশ বাহিনী বিশ্বব্যাপি প্রশংসা কুড়িয়েছে। এখন আগের চেয়ে বেশি পুলিশের জবাবদিহীতা বেড়েছে। কোন পুলিশ সদস্য মানুষের সাথে অন্যায় আচরণ করলে তার বিরুদ্ধে এসপি, ডিআইজিকে অবহিত করলে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে। সাধারণ মানুষকে সেবা দিতে পুলিশের বিভিন্ন স্থর চালু রয়েছে। তিনি মঙ্গলবার মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখায় নবনির্মিত থানা কমপ্লেক্স ভবনের আনুষ্ঠানিক উদ্ভোধন শেষে পুলিশ প্রশাসন আয়োজিত সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। ২০১৩ সালের ৯ ফেব্রুয়ারী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উক্ত থানা ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। এ থানা কমপ্লেক্স ভবন নির্মানে সরকারের ব্যয় হয়েছে ৫ কোটি ৩৭ লাখ টাকা।
মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহজালালের সভাপতিত্বে ও এসএসপি (সদর) শাহীন আহমদের পরিচালনায় থানা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত সুধী সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদের হুইপ শাহাব উদ্দিন এমপি, কেন্দ্রিয় আ’লীগের কার্যকরী সদস্য ও কমলগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, সৈয়দা সায়রা মহসিন এমপি, আব্দুল মতিন এমপি, পুলিশের সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি মিজানুর রহমান পিপিএম, মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক তোফায়েল ইসলাম, মৌলভীবাজার জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক নেছার আহমদ, মৌলভীবাজার জেলা যুবলীগের সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র ফজলুর রহমান, বড়লেখা উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম সুন্দর, উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার উদ্দিন। সুধী সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুলাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম, জুড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান গুলসান আরা মিলি, বড়লেখা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সিরাজ উদ্দিন, ৫২ বর্ডার গার্ড ব্যাটেলিয়নের (বিয়ানীবাজার) অধিনায়ক লে. কর্ণেল নেয়ামুল কবির প্রমূখ।
এরপর বিকেলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি বড়লেখা উপজেলা যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। এর আগে সকাল সাড়ে এগারোটায় তিনি জুড়ী উপজেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে জুড়ী থানা কমপ্লেক্স ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন এবং পুলিশ প্রশাসন আয়োজিত সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।

Top