ব্রেকিং নিউজ
সৌদি-আরবের সাথে মিল রেখে মৌলভীবাজার,লক্ষ্মীপুর-ঝিনাইদহে ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত

সৌদি-আরবের সাথে মিল রেখে মৌলভীবাজার,লক্ষ্মীপুর-ঝিনাইদহে ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত


বাংলাকাগজটুয়েন্টিফোরডটকম ডেক্সঃ সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে মৌলভীবাজার লক্ষ্মীপুর ও ঝিনাইদহের কয়েকটি গ্রামে আজ ঈদ উদযাপন করা হচ্ছে।
মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজারের সার্কিট হাউস এলাকায় ঈদ-উল ফিতরের নামাজের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শুক্রবার (১৭ জুলাই) সকাল ৭টার দিকে ঈদ-উল ফিতরের নামাজের জামায়াতের ইমামতি করেন আলহাজ্ব আব্দুল মাফিক চৌধুরী পীর সাহেব।সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে ২০০৮ সাল থেকে এই জায়গায় মুসল্লিরা সার্কিট হাউস এলাকার আহমদ সাবিস্তা নামক বাসার চাঁদে ঈদের জামাত আদায় করে আসছেন। শহর ও এর আশপাশের বিভিন্ন গ্রামের শতাধিক পরিবার ঈদ-উল ফিতর পালন করছেন।Jhenidah-eid-jamat-photo
জামাত শেষে একের অপরের সাথে কুলাকুলির মাধ্যমে ভ্রাত্বের বন্দনে আবদ্ধ হন। পরে সকলের মধ্যে ঈদের সেমাই বিতরণ করা হয়।আলহাজ্ব আব্দুল মাফিক চৌধুরী পীর সাহেব বলেন, ‘চাঁদ দেখার উপর নির্ভর করে সঠিক নিয়মে রোজা রাখি। এবং ঈদ-উল ফিতর পালন করি। দুরুল মুক্তার ক্বিতাবের দ্বিতীয় জ্বিলের ৯৬নং পৃষ্টায় এবং ফতোয়ায়ে আলমগীরী ক্বিতাবের ১এর ১৯৮নং পৃষ্টা উল্লেখ্য আছে, পৃথিবীর এক প্রান্তে চাঁদ দেখা গেলে অপর প্রান্তের লোকেরা নির্ভরযোগ্য পন্থায় সংবাদ পাইলে রোজা এবং ঈদ করতে হবে।
লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার নোয়াগাঁও ও কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের ৭টি গ্রাম ও রায়পুর উপজেলার বামনী ইউনিয়নের ছয়শতাধিক পরিবার সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে প্রতিবছরের মতো এবারও শুক্রবার ঈদ উদযাপন করছে।স্থানীয় সূত্র জানায়, নোয়াগাঁও ইউনিয়নের পূর্ব বিঘা, নোয়াগাঁও, জয়পুরা ও কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের বিঘা,বিশুয়া ও দক্ষিণ পূর্ব নোয়াগাঁও গ্রামের প্রায় ৪ শতাধিক পরিবার ওই এলাকার মাওলান নেছার আহমদের নেতৃত্বে একদিন আগে রোজা ও ঈদ উদযাপন করছে বলে জানা গেছে।ইউপি মেম্বার মাসুম বেবী সকালে  জানান, তার এলাকার দক্ষিণ পূর্ব নোয়াগাঁও নূরানী মাদরাসায় সকাল ১০টায় ঈদ উল ফিতরের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওই জামায়াত পরিচালনা করেন, মাওলানা নেছার আহমদ।এছাড়া একই উপজেলার কাঞ্চনপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান একে এম আবদুর করিম খান জানান, এই ইউনিয়নের বিঘা, বিশুয়া সহ ৩ ইউনিয়নের শতাধিক পরিবার আজ ঈদ উদযাপন করছে।এদিকে রায়পুর উপজেলার বামনী ইউনিয়নের কলাকোপা, বিঘা, ও দক্ষিণ পাড়া গ্রামের শতাধিক পরিবার পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করছে।অন্যদিকে, সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু উপজেলার ৬ গ্রামে ঈদ উদযাপিত হচ্ছে।Eid2জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলার বৈঠাপাড়া, ওয়াড়িয়া, চটকাবাড়ীয়া, গাজীপুর, ভালকী, পার্বতীপুর, ফলসি, কুলবাড়ীয়া ও বলরামপুর গ্রামে ঈদ উদযাপিত হয়।এসব  গ্রামের ৫০টি পরিবারের সদস্যরা সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে গত এক যুগ ধরে ঈদ জামাত আদায় করে আসছে। সকাল সাড়ে ৯টায় হরিণাকুণ্ডু শহরের ঋষিপাড়া গ্রামের মাঠে তাদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়। মাওলানা বজলুর রহমান এ ঈদের জামায়াতে ইমামতি করেন। তবে সরকারি নিয়মের বাইরে একদিন আগে ঈদ উদযাপন করায় অন্যদের সঙ্গে এ নিয়ে প্রায়ই মত বিরোধ দেখা দেয়।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ: সৌদি আরবের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার চারটি গ্রামে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়েছে।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় শিবগঞ্জ উপজেলার শাহবাজপুর ইউনিয়নের ধোবড়া কলেজ পাড়া, বিনোদপুর ইউনিয়নের বিঘি, কানসাট ইউনিয়নের শিবনগর ও চক হরিপুর এলাকায় প্রায় ১শ’ পরিবার ঈদের নামাজ আদায় করেন। এ সময় নারীরও ঈদের নামাজে শরিক হন।

শিবনগর ও চক হরিপুর এলাকার বাগানপাড়া মাঠে ঈদের নামাজে ইমামতি করেন মাওলানা আমিনুল ইসলাম ও মাওলানা আজিজুর রহমান।

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*