ব্রেকিং নিউজ
রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধ করে তাদেরকে ফিরিয়ে নিতে হবেঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধ করে তাদেরকে ফিরিয়ে নিতে হবেঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

 

ঢাকায় চলমান কমনওয়েলথ পার্লামন্টারি অ্যাসোসিয়েশনের ৬৩তম সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারও সঙ্গে বৈরিতা নয়’- এই নীতির ভিত্তিতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র নীতি পরিচালিত হয়। প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারের লক্ষ্যে তার সরকার সব সময়ই কাজ করে যাচ্ছে। রোহিঙ্গা সঙ্কট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর উপর অমানবিক নির্যাতন এবং জোর করে বিতাড়িত করার ঘটনা কেবল এ অঞ্চলে নয়, এর বাইরেও অস্থিরতা তৈরি করছে। রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধ করে তাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের ওপর চাপ প্রয়োগের জন্য কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর আইনপ্রণেতাদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

জেলহত্যা দিবসে জাতীয় চার নেতার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা

যথাযোগ্য মর্যাদায় নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে সারাদেশে জেলহত্যা দিবস পালিত হয়েছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা জেলখানায় ও বনানী কবরস্থান শহীদ নেতাদের কবরে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন। এরপর বনানী কবরস্থানে পবিত্র ফাতেহা পাঠ, মিলাদ ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে পরিবারের সদস্যের সঙ্গে নির্মমভাবে হত্যার পর চারনেতা সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দিন আহমদ, এ এইচ এম কামারুজ্জামান এবং ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলীকে গ্রেফতার করে ৩ নভেম্বর কারাগারের অভ্যন্তরে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়।

ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পেলো বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ

ইউনেস্কোর সদর দপ্তর বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে বিশ্বের প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। সংস্থাটির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণটি মেমোরি অব দ্য ওয়াল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্ট্রারে অন্তর্ভুক্ত করা হল। ইউনেস্কো গুরুত্বপূর্ণ প্রামাণ্য ঐতিহ্যের তালিকা সংরক্ষণ করে থাকে। মেমোরি অব দ্য ওয়াল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্ট্রারে অন্তর্ভুক্ত প্রামাণ্য ঐতিহ্যের তালিকা বিশ্ব প্রেক্ষাপটে গুরুত্ববহ।

ফোর্বস সাময়িকীতে বিশ্বের ৩০ তম ক্ষমতাধর নারী শেখ হাসিনা

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফোর্বস ম্যাগাজিনের করা বিশ্বের ক্ষমতাধর ১০০ নারীর তালিকায় আরও উপরের দিকে উঠে এসেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের এই সাময়িকী বুধবার ২০১৭ সালের যে তালিকা প্রকাশ করেছে, সেখানে তার অবস্থান ৩০ নম্বরে। গতবার এ তালিকায় তার অবস্থান ছিল ৩৬ নম্বরে। প্রতিবেদনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে লেডি অব ঢাকা’’ হিসেবে উল্লেখ করে বলা হয়েছে অং সান সু চির বিপরীত অবস্থানে দাঁড়িয়ে তিনি মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের সহায়তা করার অঙ্গীকার করেছেন।

রপ্তানি আয়ে উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জনের পূর্বাভাস এডিবির

চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরে বাংলাদেশ রফতানি আয়ে উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে বলে প্রক্ষেপন করেছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। এডিবির এশীয়ান ডেভলপমেন্ট আউটলুক-২০১৭ এ উল্লেখ করা হয়েছে, বড় রপ্তানি বাজার গুলোতে প্রবৃদ্ধি এবং উদীয়মান বাজারের দিকে রপ্তানি স্থানান্তরের কারণে চলতি অর্থবছর উচ্চ প্রবৃদ্ধি হবে। পণ্যের ওপর রফতানি প্রণোদনা প্রদান এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা, বন্দরে কার্গো হ্যান্ডেলিং ও কাস্টমস্ ব্যবস্থাপনার উন্নয়নে সরকারের প্রচেষ্টা এই প্রবৃদ্ধির পেছনে বড় ভূমিকা রাখবে।

সমবায়ের মাধ্যমে ৮ লাখ লোকের কর্মসংস্থান

সমবায়ের মাধ্যমে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে ৮ লাখ ২৬ হাজার ৭২৮ জন লোকের কর্মসংস্থান হয়েছে। এর ফলে সুবিধা বঞ্চিত নারী, বেকার যুবক-যুবতীদের জীবিকা অর্জনের পথ সুগম হয়েছে। বর্তমানে সমবায় সমিতিগুলোর কার্যকরী মূলধন প্রায় ১৪ হাজার ৫৪ কোটি টাকা এবং সম্পদের পরিমাণ প্রায় ৭ হাজার ৩২ কোটি টাকা।  উল্লেখ্য আওয়ামী লীগ সরকার ““জাতীয় সমবায় নীতিমালা ২০১৩” এবং “সংশোধিত সমবায় আইন ২০১৩” প্রণয়ন করে এবং সমবায় খাতের উন্নয়নে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য আসছে প্রশিক্ষণ

নারী উদ্যোক্তাদের দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এসএমই ফাউন্ডেশন এবং ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান সমূহ যৌথভাবে প্রশিক্ষণ ও অন্যান্য কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবে। এ কর্মসূচির আওতায় আগামী অর্থ বছরে এসএমই ফাউন্ডেশন নারী উদ্যোক্তাদের জন্য বিভিন্ন ব্যাংকের সাথে যৌথভাবে ৫০টি প্রশিক্ষণ কর্মসূচি আয়োজন করবে। ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান সমূহ উদ্যোক্তাদের ঋণ প্রদানের পাশাপাশি দক্ষতা ও সক্ষমতা উন্নয়ন কার্যক্রম গ্রহণের ফলে এসএমই উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে এক নতুন মাত্রার সৃষ্টি হবে।

৫২০টি গ্রামীণ বাজার তৈরি করবে সরকার

কৃষক ও বিনিয়োগকারীদের পণ্য সরাসরি ভোক্তার কাছে বিক্রির সুযোগ করে দিতে দেশের প্রতিটি উপজেলাসহ মোট ৫২০টি গ্রামীণ বাজার তৈরি করবে সরকার। প্রতিটি তিনতলা বিশিষ্ট ৪ থেকে ১০ হাজার বর্গফুটের বাজার তৈরিতে ব্যয় হবে এক হাজার ৭৩০ কোটি টাকা। স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর এ বছর  ‘দেশব্যাপী গ্রামীণ বাজার অবকাঠামো উন্নয়ন’ শীর্ষক এই প্রকল্পের কাজ শুরু করে আগামী ২০২০ সালের জুনের মধ্যে শেষ করবে।

নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষের জন্য হচ্ছে ফ্ল্যাট

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) নিম্ন ও মধ্য আয়ের লোকদের জন্য এপার্টমেন্ট নির্মাণের প্রকল্প অনুমোদন করেছে। সরকার ১০,৯০২.২১ কোটি টাকা ব্যয়ে নিম্ন ও মধ্য আয়ের লোকদের জন্য উত্তরার সেক্টর-১৮ তে প্রতিটি ১২৫০ বর্গফুটের ১১,০০৪ টি এবং প্রতিটি ১,০৫০ বর্গফুটের ৪,০৩২ টি মোট ১৫,০৩৬ টি ফ্ল্যাট নির্মাণ করবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিম্ন ও মধ্য আয়ের লোকদের জন্য প্রতিটি ৮৫০ বর্গফুটের আরো ১০০০ ফ্ল্যাট নির্মাণ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

ঢাকা আশুলিয়া এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের অনুমোদন

রাজধানী ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকাগুলোর যানজট লাঘবের লক্ষ্যে ২৪ কিলোমিটার দীর্ঘ এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ করা হবে। এটি দিয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে নবীনগর মোড়, আব্দুল্লাহপুর-আশুলিয়া-বাইপাইল ও ইপিজেড হয়ে চন্দ্রার মোড় পর্যন্ত যাওয়া যাবে। বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ ২০২২ সালের জুন মাসের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তায়ন করবে। জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি এটি নির্মাণে ১৬,৯০১.৩২ কোটি টাকা অনুমোদন দিয়েছে।

পায়রায় হচ্ছে এলএনজি ভিত্তিক ৩,৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র

পটুয়াখালির পায়রায় ৩ হাজার ৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে জার্মানির কোম্পানি সিমেন্সের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) সই হয়েছে। প্রাথমিকভাবে প্রকল্পের ব্যয় প্রাক্কলন করা হয়েছে ২৮০ কোটি মার্কিন ডলার বা প্রায় ২৩,২৪৯ কোটি টাকা। এই প্রকল্পের অর্থায়ন ও ঋণ সহায়তা করবে জার্মানি। এ কেন্দ্রটি নির্মাণ হলে এটি দেশের সবচেয়ে বড় বিদ্যুৎকেন্দ্রের মর্যাদা পাবে। পরিচ্ছন্ন বিদ্যুৎ উৎপাদনে এলএনজিভিত্তিক কেন্দ্রটি বড় ভূমিকা রাখবে।

অক্টোবরে রেমিটেন্স এসেছে ১১৫ কোটি ডলার

অক্টোবরে ১১৫ কোটি ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। এই অংক গত বছরের একই সময়ের চেয়ে প্রায় ১৫ শতাংশ বেশি। বাংলাদেশ ব্যাংক রেমিটেন্স সংক্রান্ত হালনাগাদ যে তথ্য প্রকাশ করেছে তাতে দেখা যায়, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থানকারী প্রবাসীরা চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম চার মাসে (জুলাই-অক্টোবর) ব্যাংকিং চ্যানেলে ৪৫৫ কোটি ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন। রেমিটেন্স বাড়াতে মাশুল না নেওয়াসহ নানা ধরনের উদ্যোগ দিয়েছ সরকার।

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*