ব্রেকিং নিউজ
আগৈলঝাড়ার সংখ্যালঘু ভোটারদের অব্যাহত হুমকির অভিযোগে স্বতন্ত্র প্রার্থী লাবণ্য’র সংবাদ সম্মেলন

আগৈলঝাড়ার সংখ্যালঘু ভোটারদের অব্যাহত হুমকির অভিযোগে স্বতন্ত্র প্রার্থী লাবণ্য’র সংবাদ সম্মেলন

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) থেকে :
বরিশালের আগৈলঝাড়ায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী ও থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থীর ভোটার ও সমর্থকদের ভোট প্রদানে বিরত থাকাসহ বিভিন্ন ভয়ভীতি ও গ্রেফতারের হুমকির অভিযোগ পাওয়া গেছে। শান্তিপূর্ণ নির্বাচন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে ওসি মনিরুল ইসলামের অপসারণ দাবি করে লাবণ্য আক্তার প্রধান নির্বাচন কমিশার, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পুলিশের আইজি, র‌্যাব মহাপরিচালক, ডিআইজি, জেলা রিটার্নিং অফিসার, জেলা প্রশাসক, রিটার্নিং অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছেন।
প্রথম ধাপে আগামী ২২ মার্চ ইউপি নির্বাচনে উপজেলার ২নং বাকাল ইউনিয়নে একমাত্র মহিলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে লাবণ্য আক্তার ঘোড়া প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ওই ইউনিয়নে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান বিপুল দাস ও তার অনুসারীরা ভোটার, সমর্থক ও সাধারণ জনগণের মধ্যে অপকৌশল অবলম্বন করে বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদর্শন করে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করার অভিযোগ করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী লাবণ্য।
গতকাল শুক্রবার সকালে আগৈলঝাড়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লাবণ্য আক্তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, বাকাল ইউনিয়ন সংখ্যালঘু অধ্যুষিত এলাকা। নির্বাচনী এলাকায় তার সমর্থন বেশী থাকায় তার প্রতিপক্ষ প্রার্থী বিপুল হুমকি-ধামকি দিয়ে বলে বেড়াচ্ছেন- তাদের ভোট ছাড়াই তিনি নির্বাচিত হবেন। ভোটের দিন তাদের ভোট কেন্দ্রে যেতে হবেনা। এমনকি নির্বাচনের দিন তার (লাবন্য) এজেন্ট বের করে দিয়ে ব্যালট ছিনতাই করে সীল দেয়া হবে। আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী বিপুলের সাথে একাত্ম হয়ে একই পন্থা অবলম্বন করে হুমকি-ধামকি ও গ্রেফতারের ভয় দেখাচ্ছেন থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম। অভিযোগে তিনি আরও বলেন, ওসি তার স্বামীকে তার সাথে দেখা করে আর্থিক সুবিধা চেয়েছিলেন। কিন্তু তিনি যাননি। ওসির এহেন পক্ষপাতমূলক আচরণের কারণে সাধারণ কোন ভোটার হুমকি পাওয়ার পরেও গ্রেফতার আতঙ্কে থানায় নিরাপত্তা চাইতে ব্যর্থ হচ্ছেন। তাই এই ওসি’র অধীনে নিয়োজিত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সাধারণ জনগণের কোন কাজে আসবে না। এলাকার সাধারণ ভোটারদের নির্বিঘেœ ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে এলাকার অভিভাবক স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আবদুল্লাহর সুদৃষ্টি কামণা করে লাবণ্য আক্তার আরও বলেন, নির্বাচনে নাগরিকদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে প্রতিটি কেন্দ্রকে ঝুকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করে প্রত্যেক কেন্দ্রে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের আবেদন জানান।
আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী বিপুল দাস তার বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে বলেন, নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত জেনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী তার বিরুদ্ধে নির্বাচনমুখী অপপ্রচার চালাচ্ছেন। আগৈলঝাড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলাম বলেন, লাবণ্য আক্তার বেআইনীভাবে জ্যান্ত ঘোড়া নিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছিলেন। তার ঘোড়া আটক করার পর ভ্রাম্যমান আদালতে ৫হাজার টাকা জরিমানা করায় আমার বিরুদ্ধে এসব মিথ্যা অভিযোগ করেছে।

Share This:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*